পটুয়াখালী গলাচিপায় ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ছাত্র-জনতার বিরুদ্ধে মামলা

বর্তমান  ক্ষমতাশীন দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অগনতান্ত্রীক অপতৎপরতা ও বিএনপির সাংগঠনিকসম্পাদক সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এম ইলিয়াস আলীর গুমের প্রতিবাদে গলাচিপা  থানা বিএনপি ওতার সকল অঙ্গ সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে এক প্রতিবাদ সভা আয়োজন করে। সকাল
দশটায় সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও বিএনপি ব্যাপক সংঘর্ষ হয় ।
এসময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সমাবেশে কাঁদুনি গ্যাস নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জ করে সমাবেশ ভেঙ্গে দেয়। এসময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আমি সহ ২১ জন বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা কর্মীকে গ্রেফতার করে স্থানীয়থানায় নিয়ে যায়।

গলাচিপায় সমাবেশের সময় গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় অজ্ঞাত ‘উচ্ছৃঙ্খল ছাত্র ও জনতা’র নামে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। তারা হলেন তারা হলেন- শহিদুল ইসলাম, সানাউল্লাহ, সজীব খান, কাজি আবু জাহের, এমরানুর রহমান, মহসিন মিয়া, ফরহাদ উদ্দিন ও আজিজুল হাকিম তানভিন, আসামি নজরুল ইসলাম খাদেম, সৈয়দ গোলাম সারোয়ার, কাজি ইয়াকুব আলী, মাওলানা হেলাল উদ্দিন ভূইয়া, গোলাম ফারুক, রুস্তম আলী, নিপু, ছাত্র শিবিরের সাবেক জেলা সভাপতি রাশেদুল করিম রানা, নূরুল্লাহ, আশরাফুল ইসলাম বাবু, সিরাজুল ইসলাম হুমায়ুন, জাহিদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম ইকবাল, বিল্লাল আহমেদ।২১ জনকে অভিযুক্ত করে মামলার প্রস্তুতি চলছে ।

RELATED post